১২ কেজি সোনার বারসহ দুই জাপানি গ্রেপ্তার : বাংলাদেশ

ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ১২ কেজি সোনার বারসহ দুই জাপানি নাগরিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল বুধবার দিবাগত রাতে এই ঘটনা ঘটে। 

গ্রেপ্তার হওয়া দুই জাপানি নাগরিক হলেন তাকিও মিমুরা ও সুইচি সাতো।

বাংলাদেশে এই প্রথম জাপানি নাগরিকের কাছ থেকে চোরাচালানের সোনা উদ্ধারের ঘটনা ঘটল।

কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর জানায়, গতকাল দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে মালয়েশিয়া থেকে এয়ার এশিয়ার একটি ফ্লাইট ঢাকায় আসে। ফ্লাইটটিতে ওই দুই জাপানি নাগরিক আসেন। তাঁদের কাছে মোট ৩০টি সোনার বার পাওয়া যায়। জব্দ সোনার বারের ওজন ১২ কেজি। দাম প্রায় ৬ কোটি টাকা। 

কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর জানায়, গোপন তথ্যের ভিত্তিতে কাস্টমস গোয়েন্দা দল জানতে পারে, এয়ার এশিয়ার একটি ফ্লাইটে আসা জাপানি যাত্রীদের মাধ্যমে সোনা চোরাচালান হবে। কাস্টমস গোয়েন্দা দল ফ্লাইটটির যাত্রীদের দিকে নজর রাখে। একপর্যায়ে দুই জাপানি যাত্রীকে শনাক্ত করা হয়। তাঁদের নজরদারিতে রাখা হয়।

দুই জাপানি যাত্রী গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম করার পর তাঁদের কাছে সোনা আছে কি না—জানতে চান শুল্ক গোয়েন্দারা। যাত্রীরা সোনা থাকার কথা অস্বীকার করেন। তাঁদের লাগেজ স্ক্যানিং করে কিছু না পাওয়া যায়নি। পরে শরীর আর্চওয়ে করে ধাতব বস্তুর উপস্থিতির সংকেত পাওয়া যায়।

ব্যাগেজ কাউন্টারে নিয়ে বিভিন্ন সংস্থার উপস্থিতিতে দুই জাপানি নাগরিকের শরীর তল্লাশি করা হয়। তাঁদের হাফ প্যান্টের ভেতর দিকে বিশেষভাবে তৈরি পকেটে ৩০টি সোনার বার পায় কাস্টমস গোয়েন্দারা।

দুই জাপানি নাগরিকের বিরুদ্ধে কাস্টমস আইনে ব্যবস্থা নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তাঁদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করা হয়েছে। তাঁদের পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সূত্র : দৈনিক প্রথম আলো ০৮ আগস্ট ২০১৯

Please follow and like us:
error

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *