বাংলাদেশ-জাপানে বিমান চলাচল জানুয়ারি থেকে

আগামী জানুয়ারি থেকে বাংলাদেশ ও জাপানের মধ্যে সরাসরি বিমান চলাচল করবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

রোববার সন্ধ্যায় জাপানের টোকিও শহরে ‘বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট- ২০১৬’র পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে তিনি একথা জানান। অনুষ্ঠানের আয়োজন করে যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগ (জাপান)।

মোজাম্মেল হক বলেন, জাপান আমাদের পুরনো উন্নয়ন সহযোগী দেশ। দেশটির সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে সরাসরি বিমান চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে আর বেশিদিন না, আগামী জানুয়ারি মাসেই সরাসরি বিমান চলাচল শুরু হয়ে যাবে।
তিনি বলেন, ‘এ বিষয়ে জোর পদক্ষেপ চালানো হচ্ছে। বাংলাদেশ বিমান কার্যালয়ের পক্ষ থেকে আমাকে জানিয়েছে, জানুয়ারি মাস থেকে সরাসরি বিমান চালু হবে। এ কার্যক্রম গতিশীল করতে আমি বিমানমন্ত্রীর (বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী) সঙ্গেও কথা বলব। এখন শুধু জাপান সরকারের অনুমতি বাকি।’

বাংলাদেশে সাত জাপানিকে হত্যার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি। এ ঘটনা মাথায় না নিয়ে বাস্তব অবস্থা মাথায় রেখে সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে জাপান সরকারের প্রতি আহ্বান জানান মন্ত্রী।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় জাপানের সম্রাট হিরোহিতো আমাদের সমর্থন করায় আমরা তার একটা ভাস্কর্য নির্মাণ করব। তার বিনিময়ে জাপানের গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর একটি ভাস্কর্য নির্মাণ করতে হবে। বাংলাদেশে ফিরে আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে কথা বলে অফিসিয়ালি এই প্রস্তাব পাঠাব।

মন্ত্রী বলেন, খালেদা জিয়া ১০ বছর, জিয়া ১০ বছর ও এরশাদ ১০ বছর ক্ষমতায় থাকায় এই ৩০ বছর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নির্বাসিত ছিল। বঙ্গবন্ধুর উত্তরসুরি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এটি আবার ফিরে এসেছে।

তিনি জাপানে বঙ্গবন্ধু ক্রিকেট টুর্নামেন্ট সম্পর্কে বলেন, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে সুদুর জাপানে ক্রিকেট টুর্নামেন্ট মানেই বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে বিশ্বের কাছে তুলে ধরা। জাপানের জনগণ বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানবে। আশা করি এই ধারা অব্যাহত থাকবে। প্রয়োজনে ক্রীড়ামন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলব।

অনুষ্ঠানে ছিলেন, মিরপুর ফজিলাতুন্নেসা কলেজের অধ্যক্ষ মনজু মনোয়ারা, জাপানে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তা ও সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

সূত্র : রাইজিংবিডি/টোকিও/১০ অক্টোবর ২০১৬/মামুন/হাসান/এসএন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *